1. admin@protidineralo.news : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নন্দীগ্রাম পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৮লক্ষ টাকা ব্যয়ে পিট স্লাব বিতরন করলেন পৌর মেয়র নন্দীগ্রাম থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৩ শৈলকুপায় কোটিপতি স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ ঝিনাইদহে গভীর রাতে শীতার্তদের মাঝে জেলা জজ’র কম্বল বিতরন র‌্যাব ৬’র অভিযানে শৈলকুপায় আলোচিত হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার শৈলকুপায় দুই আ’লীগ নেতা বহিস্কার কৃষিতে সম্ভাবনাময় গাইবান্ধার চরাঞ্চল    _______জেলা প্রশাসক- মো.অলিউর রহমান নন্দীগ্রামে কৃষি সেবা ও প্রযুক্তি সম্প্রসারণে একজন আদনান বাবু কালীগঞ্জে পরাজিত মেম্বর প্রার্থীর লাশ উদ্ধার! সাময়িক বরখাস্তকৃত দুই ব্যাংক কর্মকর্তা ও এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ আদালতে মামলা

নন্দীগ্রামে আদালত অবমাননা করে স্থাপনা নির্মাণ, সংঘর্ষের আশংকা

প্রশাসন
  • সময় : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১
  • ৪৪ বার পঠিত

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি:

বগুড়ার নন্দীগ্রামে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক স্থাপনা নির্মাণ কেন্দ্র করে টানা তিনদিন দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছোট ডেরাহার গ্রামের মৃত আহম্মেদ আলীর ছেলে আব্দুস সামাদ থানায় লিখিত অভিযোগের পর জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করলে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে উত্তেজিত পরিস্থিতি শান্ত করে। পুলিশ বলছে, ওই সম্পত্তির ওপর আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও থানা পুলিশকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেননি। যেকারণে হস্তক্ষেপ করছে না পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে প্রতিপক্ষ একই গ্রামের মৃত হারেছ আলীর ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ লোকজন নিয়ে মামলার বাদী আব্দুস সামাদের পরিবারের লোকজনের ওপর হামলা করে বলেও অভিযোগ করা হয়। জমিজমা বিরোধের জেরে ছোট ডেরাহার গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যে বড় ধরণের সংঘর্ষের আশংকা করছেন স্থানীয়রা।
অভিযোগে জানা যায়, ১৭.৫ শতক পারিবারিক সম্পত্তি ফিরে পাবার জন্য ছোট ডেরাহার গ্রামের কয়েকজনের বিরুদ্ধে সম্প্রতি বগুড়ার আদালতে মামলা করেন আব্দুস সামাদ। মামলা চলাকালে সম্পত্তির ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন করেন। সিনিয়র সহকারি জজ আদালতের বিচারক শাহরিয়ার শামস ওই সম্পত্তির ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন মঞ্জুর করে মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয়পক্ষকে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেন। এদিকে আদালত অবমাননা করে গত রোববার প্রতিপক্ষরা দলবদ্ধ হয়ে দিনে ও রাতে ইট দিয়ে ভবন নির্মাণকাজ করছেন। এনিয়ে গত সোমবার থানায় অভিযোগ করেন আব্দুস সামাদ। থানায় অভিযোগ করে বাড়ি ফিরলে মামলার বাদী আব্দুস সামাদসহ তার পরিবারের লোকজনদের ওপর হামলা করে প্রতিপক্ষরা। উভয় পক্ষের মধ্যে টানটান উত্তেজনা দেখা দিলে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন দেয় আব্দুস সামাদ। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে ফিরে যায়। পুলিশ যাওয়ার পরপরই পুনরায় স্থাপনা নির্মাণকাজ করছেন অভিযুক্তরা। সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ বলেন, আমি ছোট ডেরাহার মৌজার ১১৬ হাল দাগে ১৭ শতক জায়গা মায়ের দেয়া দলিল মুলে রেকর্ড করে খাজনা খারিজ করে ৩০ বছর ধরে মাটির বাড়ি করে বসবাস করে আসছি, এখন ইটের বাড়ি করার সময় বাধাা দেয়া হচ্ছে, যেহুতু আমার নিজের সম্পত্তি যার কারনে ঘর আমি করবই। এ প্রসঙ্গে থানার ওসি মোঃ কামরুল ইসলাম বলেন, উভয় পক্ষকে আদালতের আদেশ মেনে চলার জন্য বলা হয়েছে ,আদালত থানা পুলিশকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেননি। নির্দেশ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর