1. admin@protidineralo.news : admin :
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১১:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সুন্দরগঞ্জে রাস্তা দখল করে পানের বরজ তৈরি ঝিনাইদহের যুবকের কৃষি যানবাহন উদ্ভাবন কোটচাঁদপুরে ইজিবাইকের ধাক্কায় বাবার হাত থেকে ছিটকে পড়ে শিশুর মৃত্যু ঝিনাইদহে নারীদের আত্মকর্মসংস্থান বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিনামুল্যে বকনা বাছুর বিতরণ অবৈধ ভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশকালে মহেশপুর সিমান্তে আটক ৫ সুন্দরগঞ্জে নাশকতা মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরা কোটচাঁদপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে আঃলীগ নেতার হুঙ্কার, বিরোধী পক্ষ কেউ যেন ভোট চাইতে না পারে! মহেশপুর সিমান্তে ১৭ জন গ্রেফতার দলীয় প্রার্থীকে জয়ী করতে এখন  মাঠে নেমেছে জাপার নেতা-কর্মীরা

তাড়াশে সুতি জাল উচ্ছেদ

প্রশাসন
  • সময় : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ৮২ বার পঠিত

চলনবিল প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের তাড়াশে অবৈধ সুতি জাল উচ্ছেদ করা হয়েছে। ৬ জুলাই মঙ্গলবার সকালে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা মৎস্য অফিসার মশগুল আজাদ ও তার অধিনস্ত সকল স্টাফ এবং স্থানীয় ইউপি ওয়ার্ড মেম্বর হাবিবুর রহমান হিরন। উপজেলার তালম ইউনিয়নের কলামুলা ভাদাই ব্রীজ থেকে তালম নাগোড় পাড়া পর্যন্ত ভদ্রাবতী নদীতে যে সকল অবৈধ সুতি জাল ছিলো তার মধ্যে কলাকুপা বাজারের সংলগ্ন মকলেছুর রহমানের সুতি জালের বাধ ভেঙ্গে দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেন। পানিতে বিষাক্ত জীবানু থাকায় অভিযান পরিচালনাকারী সদস্যরা পানিতে বেশি ক্ষণ থাকতে পারেন নি। তবে অভিযান অব্যাহত আছে। আগামী কাল আবারো এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে।
গত ৫ জুলাই সোমাবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা ও এলাকাবাসীর অভিযোগে ওই এলাকার মানুষের দুর্ভোগের কথা বিভিন্ন স্থানীয়,জাতীয় ও অনলাইন নিউজ পোর্টালের মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। সংবাদে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করায় উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতায় ও উপজেলা মৎস্য অদিদফতরের উদ্যোগে এই অভিযান পরিচালনা করায় এলাকাবাসীর মনে হাসি দেখা গেছে। কলামুলা ভাদাই ব্রীজ থেকে শুরু করে তালম নাগোড়পাড়া পর্যন্ত ভদ্রাবতী নদীর মাঝে মাঝে ১১টি সুুতি জালের বাধ উচ্ছেদ করলেই এলাকার মানুষ তাদের সমস্যা গুলো সমাধান করতে পারবে বলে আশাবাদী।

SAMSUNG CAMERA PICTURES

কোলাকুপা গ্রামের বাসিন্দা আবু সাইদ সরকার বলেন, এই সুতির জাল উচ্ছেদ করায় আমরা অত্যন্ত খুশি হয়েছি। তবে আরো কিছু দিন আগে যদি উচ্ছেদ হতো তাহলে আমাদের ক্ষতিটা হতো না।
একই গ্রামের আলহাজ্ব মোঃ মোফাজ্জল হোসেন জানান, এই সুতি জাল থাকার কারনে আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। পানি নামতে না পারায় এলাকায় অনেক সমস্যা দেখা দিয়েছে। আজকে মৎস্য অফিসার এসে আমাদের ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করলো এ জন্য আমি আনন্দিত।
নামো সিলেট গ্রামের বাসিন্দা সাইদুর রহমান বলেন, আমরা যে কষ্টে ছিলাম আজকে এই অভিযান দেখে আমাদের কষ্ট লাঘব হয়েছে। এই অভিযানে জড়িত সকলের প্রতি আমাদের এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে চির কৃতজ্ঞতা জানাই।
এই বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস-উজ-জামান বলেন, এলাকার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব করতে সুতি জাল উচ্ছেদ করায় মৎস্য অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ।
উপজেলা মৎস্য অফিসার মশগুল আজাদ বলেন, সুতি জাল দিয়ে মাছ ধরা সম্পন্ন নিষেদ। সুতি জাল উচ্ছেদের অভিযান শুরু হয়েছে। সব গুলো সুতি জাল উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর