1. admin@protidineralo.news : admin :
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নিখোঁজের ৫ দিন পর ঝিনাইদহে পুকুর থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার, হত্যা নাকি আত্মহত্যা! করোনার রেড জোনে যশোর ও কুষ্টিয়া আর ‘ইয়েলো জোনে’ চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ জেলা রানার মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগের প্রতিবাদে নন্দীগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন পলাশবাড়ীতে চোখে গুল ও বালু ছিটিয়ে ৩ লাখ ৬৫ হাজার ৮ শত টাকা ছিনতাইয়ে অভিযোগ এসএম কামাল হোসেনের সুস্থতা কামনায় নন্দীগ্রামে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সুন্দরগঞ্জে হিরোইনসহ শিক্ষক গ্রেপ্তার সুন্দরগঞ্জে ইট ভাটায় চলে যাচ্ছে আবাদি জমির উর্বর মাটি শৈলকুপা প্রেসক্লাবে ছোট ভাইয়ের সংবাদ সম্মেলন ঝিনাইদহে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে অভিভাবকদের সাথে সংলাপ অনুষ্ঠিত সুন্দরগঞ্জে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহ জেলা জুড়ে দাপিয়ে বেড়ানো ভূইফোঁড় সংগঠনের নেতারা উধাও!

প্রশাসন
  • সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১
  • ৪০ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঢাকার মতো ঝিনাইদহেও আওয়ামীলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে গজিয়ে ওঠে ভুইফোঁড় সংগঠন। জেলার বিভিন্ন প্রন্তে ঝুলতো তাদের সাইন বোর্ড। আওয়ামীলীগের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতারা এ সব ভুইফোড় সংগঠনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু ঢাকায় হেলানা জাহাঙ্গীর ও দর্জি মনিরসহ হাইব্রীড নেতাদের গ্রেফতার অভিযান শুরু হলে তার ঢেউ ঝিনাইদহেও আছড়ে পড়ে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, ঝিনাইদহ শহরে বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদ, প্রজন্ম লীগ, তরুন লীগ, জয় পরিষদ, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, মুক্তিযোদ্ধা লীগ, প্রচার লীগ, তথ্য প্রযুক্তি লীগ, বিশ্ব মুজিব সেনা ঐক্য পরিষদ ও অনলাইন লীগের নানা কার্যক্রম ও ব্যানার বিলবোর্ড চোখে পড়তো। এর মধ্যে অনলাইন লীগ ও বিশ্ব মুজিব সেনা ঐক্য পরিষদ অনলাইনে আওয়ামী লীগ সরকারের প্রচার প্রচারণা চালাতো। ঝিনাইদহের একটি বড় এনজিও’র প্রথমে বিএনপি, পরে জাতীয় পার্টি এবং সবশেষে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের বিলবোর্ড তৈরী করে শহরে টাঙান। কুমিল্লা থেকে এসে আরেক ব্যক্তি ঝিনাইদহে এসে তথ্য প্রযুক্তিলীগ নামে একটি সংগঠন খুলে নিজেকে জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দাবি করতেন। বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদ নামে সংগঠন খুলে ঝিনাইদহ ও ঢাকা দাপিয়ে বেড়োচ্ছেন এক নারী। তার বাড়ি মহেশপুর উপজেলার পান্তাাপাড়া গ্রামে। ঝিনাইদহে একজন এমপির ছত্রছায়ায় ওই নারী এখন মহেশপুর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। ইতিমধ্যে তিনি নানা জনহিতকর কাজ করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। এ সব ভুইফোঁড় সংগঠন নিয়ে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অশোক কুমার ধর বলেন, ঝিনাইদহে কোন ভূইফোঁড় সংগঠনই সুবিধা করতে পারেনি। আমাদের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, তাতী লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ ও বর্তমানে আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ নিয়মিত সক্রিয় থাকায় কোন সংগঠন সুবিধা করতে পারেনি। তিনি বলেন কথিত ওই সব সংগঠনের কোন নেতিবাচক কর্মকান্ডে আওয়ামী লীগের দায়বদ্ধতা নেই। অশোক ধরের ভাষ্যমতে অনেকেই নিজেদের অসৎ উদ্দেশ্য সাধনের জন্য সংগঠন খোলে। নেতার নাম ভাঙিয়ে চলে। ঝিনাইদহ জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ সালমা ইয়াসমিন বলেন, ১/১১ এর সময় থেকেই আমি রাজপথে আছি। মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ করতে অনেকেই কয়েক দিন আসে আবার হারিয়ে যায়। তবে অনেকেই নিজেদের সৌন্দর্য-গুন দিয়ে কিছু দিনের মধ্যে জায়গা পেয়ে যায়। স্বার্থ হাসিল হলে আবার হারিয়ে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর