1. admin@protidineralo.news : admin :
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নন্দীগ্রামে সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেনের বিভিন্ন দূর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শন ডিমলায় উপজেলা পুষ্টি সমন্ময় কমিটির দ্বি- মাসিক ও বার্ষিক কর্ম পরিকল্পনা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত নন্দীগ্রামে ভাইস চেয়ারম্যানের বিভিন্ন দূর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শন ডিমলায় আইন-শৃংখলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত নন্দীগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক যুবকের মৃত্যু তাড়াশে বজ্রপাতে মৃত্যু তাড়াশে ২শ মোটর সাইকেল নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের পুজা মন্ডব পরিদর্শন তাড়াশে শেয়ালের অত্যাচারে জনগন আতংকে তাড়াশে শ্বারদীয় দুর্গা পুজা উৎসবে এমপি আজিজের শুভেচ্ছা তাড়াশে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে মাধাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল হান্নান প্রচার প্রচারনায় শীর্ষে

কালীগঞ্জে হোটেলে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধার পরিচয় মিলেছে

প্রশাসন
  • সময় : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪ বার পঠিত

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ-

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ শহরে খাবার হোটেলে ছেলে পরিচয়ে রেখে যাওয়া সেই বৃদ্ধার পরিচয় মিলেছে। বৃদ্ধার নাম জমেনা খাতুন। তিনি যশোর সদর উপজেলার রুপদিয়া এলাকার মৃত কেরামত আলীর স্ত্রী। শুক্রবার রাতে বৃদ্ধার জ্ঞান ফিরলে তাকে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গত বৃহস্পতিবার বিকালে ছেলে পরিচয়ে কালীগঞ্জ শহরের শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজে এক বৃদ্ধাকে বসিয়ে রেখে চলে যান ছেলে পরিচয়দানকারী এক যুবক। এরপর আর ফিরে আসেনি সেই যুবক। হোটেলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান বৃদ্ধা। খবর পেয়ে কালীগঞ্জ থানার এসআই আলামিন হোসেন ও সঙ্গীয় ফোর্স এসে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কালীগঞ্জ থানার এসআই আলামিন হোসেন জানান, বৃদ্ধাকে উদ্ধারের সময় তিনি অজ্ঞান অবস্থায় ছিলেন। কোনভাবেই সম্ভব হয়নি তার পরিচয় জানার। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রায় ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসার পর তার জ্ঞান ফিরে এলে তিনি কথা বলতে পারেন। এসআই আলামিন জানান, তিনি গান্না ইউনিয়নের মাধবপুর এলাকায় যাচ্ছিলেন বেয়াই বাড়ি। পথিমধ্যে কালীগঞ্জ নিমতলা এলাকায় এক যুবক তাকে অনুসরণ করেন। এ সময় বৃদ্ধার সঙ্গে ওই যুবকের কথাও হয়। বৃদ্ধাকে মিষ্টি কিনে দেওয়ার জন্য নিয়ে যান শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজে। বৃদ্ধার কাছে এক হাজার ৬০০ টাকা ছিল। এ সময় এক হাজার টাকা নিয়ে পানের সঙ্গে চেতনানাশক কিছু খাইয়ে সে পালিয়ে যায়। শুক্রবার রাতে ওই বৃদ্ধার জ্ঞান ফিরে এলে তার ছেলে সাহেব আলী ও বেয়াই আবদুল শাহের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর