1. admin@protidineralo.news : admin :
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নন্দীগ্রামে সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেনের বিভিন্ন দূর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শন ডিমলায় উপজেলা পুষ্টি সমন্ময় কমিটির দ্বি- মাসিক ও বার্ষিক কর্ম পরিকল্পনা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত নন্দীগ্রামে ভাইস চেয়ারম্যানের বিভিন্ন দূর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শন ডিমলায় আইন-শৃংখলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত নন্দীগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক যুবকের মৃত্যু তাড়াশে বজ্রপাতে মৃত্যু তাড়াশে ২শ মোটর সাইকেল নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের পুজা মন্ডব পরিদর্শন তাড়াশে শেয়ালের অত্যাচারে জনগন আতংকে তাড়াশে শ্বারদীয় দুর্গা পুজা উৎসবে এমপি আজিজের শুভেচ্ছা তাড়াশে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে মাধাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল হান্নান প্রচার প্রচারনায় শীর্ষে

পলাশবাড়ীতে সড়কের পাশে ড্রেন নির্মাণে বৈষম্যের স্বীকার হয়ে অর্ধশতাধিক ব্যবসায়ি নিঃস্ব

প্রশাসন
  • সময় : রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৮ বার পঠিত

আশরাফুল ইসলাম গাইবান্ধা :

গাইবান্ধা- পলাশবাড়ী সড়কের ঢোলভাঙ্গাবাজারের উত্তর পার্শ্বে ও দক্ষিণ পার্শ্বে ড্রেন নির্মাণে বৈষম্যের স্বীকার হয়ে নিঃস্ব ভুক্তভোগী স্থানীয় ব্যবসায়ি ও জমির মালিকগণ গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপ কামনা করে একটি আবেদন করেছেন।

এ আবেদনের সূত্র ধরে দেখা যায় ও জানা যায়, পলাশবাড়ী উপজেলার ৬ নং বেতকাপা ইউনিয়নের পার আমলাগাছী মৌজায় জে এল নং ১২৫ বিআরএস নং ১৫, ২০, ২৭, ১১০, ১৭৬, ১৮৯, ২২৭, ২৯০, ৪২৯, ৪৮৬, ৪৯৬, ৪৯৭, ৫২৭ এর ব্যক্তি মালিকানা জমি গুলো দখল করে ড্রেন নির্মাণ করায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারিয়ে জমির মালিক ও স্থানীয় প্রায় ৬০ হতে ৭০ জন ব্যবসায়ি মানববেতর জীবন যাপন করছেন। মহামান্য হাইর্কোটের নির্দেশনা অনুযায়ী সড়কের নিজেস্ব জমির সীমানা হতে ১০ মিটার দূরে বসতবাড়ী অথবা ব্যবসা প্রতিষ্টান নির্মাণ করার নির্দেশনার সাইন বোর্ড থাকলেও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের যোগসাজসে বৈষম্য মূলক ভাবে ড্রেন নির্মাণ করায় কেউ বহাল তবিয়তে সড়কের জমিতে স্থাপনা রেখেছেন আবার কেউ নিজের ব্যক্তি মালিকান জমিতে থাকা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন।

এবিষয়ে দায়িত্ব প্রাপ্ত গাইবান্ধা সড়ক ও জনপদ বিভাগের উপ সহকারি প্রকৌশলী(এসও) মিজান ও উপস্থিত ঠিকাদারের লোকজন জানান, সড়কের নির্দিষ্ট ম্যাপ অনুযায়ী ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে। নিয়ম অনুসারেই ড্রেন নির্মাণের কার্যক্রম চলছে। এবিষয়ে কোন অভিযোগ থাকলে উর্দ্বোতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানাতে পারেন ভুক্তভোগীরা।

এদিকে স্থানীয় ভুক্তভোগী আলহাজ্ব আফসার আলী,মোখলেস প্রধান,আব্দুল মমিন,শহিদুল ইসলাম,রোস্তম আলী,আজিউল ইসলাম,হাসান আলী,এনামুল হকসহ অন্যান্যরা জানান, ঢোলভাঙ্গা বাজারে সড়কের দুপাশে ড্রেন নির্মাণে ব্যাপক বৈষম্য করা হচ্ছে। ড্রেন নির্মাণে অর্থের বিনিময়ে ম্যানেজ প্রক্রিয়ায় কোথায় ১২ ফিট ছাড় দেওয়া হয়েছে আবার কোথাও ব্যক্তি মালিকানা জমির উপরে ড্রেন নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান । তারা এই বৈষম্য মুলক কার্যক্রম বন্ধে জাতীয় সংসদ সদস্য ও জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর