1. admin@protidineralo.news : admin :
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নিখোঁজের ৫ দিন পর ঝিনাইদহে পুকুর থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার, হত্যা নাকি আত্মহত্যা! করোনার রেড জোনে যশোর ও কুষ্টিয়া আর ‘ইয়েলো জোনে’ চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ জেলা রানার মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগের প্রতিবাদে নন্দীগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন পলাশবাড়ীতে চোখে গুল ও বালু ছিটিয়ে ৩ লাখ ৬৫ হাজার ৮ শত টাকা ছিনতাইয়ে অভিযোগ এসএম কামাল হোসেনের সুস্থতা কামনায় নন্দীগ্রামে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সুন্দরগঞ্জে হিরোইনসহ শিক্ষক গ্রেপ্তার সুন্দরগঞ্জে ইট ভাটায় চলে যাচ্ছে আবাদি জমির উর্বর মাটি শৈলকুপা প্রেসক্লাবে ছোট ভাইয়ের সংবাদ সম্মেলন ঝিনাইদহে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে অভিভাবকদের সাথে সংলাপ অনুষ্ঠিত সুন্দরগঞ্জে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেপ্তার

সুন্দরগঞ্জ হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

প্রশাসন
  • সময় : শুক্রবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৭ বার পঠিত
হযরত বেল্লাল, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ
১০ ডিসেম্বর ছিল সুন্দরগঞ্জ থানা হানাদার মুক্ত দিবস।  দিবসটি পালনে গতকাল শুক্রবার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোহাম্মদ আল মারুফের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আফরুজা বারী। আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগ যুগ্ম আহবায়ক ও দহবন্দ ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান রেজাউল আলম রেজা, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, এমদাদুল হক বাবলু, আবুল হোসেন, আব্দুস সোবহান, ফনীন্দ্র কুমার সাহা প্রমুখ। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগ যুগ্ম আববায়ক আহসান আজিজার সরদার মিন্টু, হাফিজা বেগম কাকলী, পৌর আ’লীগ সভাপতি আহসানুল করিম চাঁদ, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি গণেশ শীলসহ আ’লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতার্কীগণ। বক্তাগণ হানাদার মুক্ত দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন ৮ ডিসেম্বর গাইবান্ধা মহকুমার সাথে যোগাযোগ রক্ষাকারী হলহলিয়া নামক ব্রীজটি বোমা মেরে উড়িয়ে দিলে হানাদার বাহিনীর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। শুরু হয় প্রচন্ড লড়াই। মুক্তিবাহিনীর রণ কৌশলে হানাদার বাহিনী হেরে গিয়ে পিছু হটতে থাকে। পরে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। শুরু হয় রাজাকার ও মোজাহিদ বাহিনীর সাথে লড়াই। যুদ্ধকালে কিছু সংখ্যক মুক্তিযোদ্ধা আহত হয়। অবশেষে ১০ ডিসেম্বর ২৫০ জন রাজাকার অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ করে। মুক্তিযোদ্ধারা, বাংলার সবুজ পতাকা উড়িয়ে সুন্দরগঞ্জ থানাকে হানাদার মুক্ত ঘোষণা  করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর