1. admin@protidineralo.news : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নন্দীগ্রাম পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৮লক্ষ টাকা ব্যয়ে পিট স্লাব বিতরন করলেন পৌর মেয়র নন্দীগ্রাম থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৩ শৈলকুপায় কোটিপতি স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ ঝিনাইদহে গভীর রাতে শীতার্তদের মাঝে জেলা জজ’র কম্বল বিতরন র‌্যাব ৬’র অভিযানে শৈলকুপায় আলোচিত হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার শৈলকুপায় দুই আ’লীগ নেতা বহিস্কার কৃষিতে সম্ভাবনাময় গাইবান্ধার চরাঞ্চল    _______জেলা প্রশাসক- মো.অলিউর রহমান নন্দীগ্রামে কৃষি সেবা ও প্রযুক্তি সম্প্রসারণে একজন আদনান বাবু কালীগঞ্জে পরাজিত মেম্বর প্রার্থীর লাশ উদ্ধার! সাময়িক বরখাস্তকৃত দুই ব্যাংক কর্মকর্তা ও এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ আদালতে মামলা

কোটচাঁদপুর ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় নবজাতক মৃত্যুর ঘটনার মাস পার

প্রশাসন
  • সময় : বুধবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৬ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে সামস্উদ্দীন মেমোরিয়াল প্রাইভেট হাসপাতালে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় আজও কোন প্রকার ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ রয়েছে ১০ শয্যা অনুমোদনে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন ৩০ শয্যায়। এছাড়াও রয়েছে ১৫টি কেবিন। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন এলাকার সূধী ও সচেতন মহল। জানা গেছে, গেল ১৫ ডিসেম্বর রাতে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও অব্যস্থাপনার শিকার হয়ে হার্নিয়ার অপারেশন করা আব্দুল মান্নান (৫০) নামে এক রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ওই রাতেই সামস্উদ্দীন মেমোরিয়াল প্রাইভেট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রাতের আধারেই মৃতদেহটি বাড়িতে রেখে আসেন। এ ঘটনা নিয়ে পরের দিন বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক ও জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এছাড়া অন-লাইন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠে। এরপরও সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা না নেওয়ায় বহাল তবিয়তে ক্লিনিক ব্যবসা করে যাচ্ছেন সামস্উদ্দীন মেমোরিয়াল প্রাইভেট হাসপাতালের মালিক ডাঃ ছহি উদ্দিন। ক্লিনিকের শয্যা সংখ্যা নিয়ে ডাঃ ছহি বলেন, ১০ শয্যার অনুমোদন আছে, ব্যবহার করা হয় ১৮/২০ শয্যা। এসময় তিনি অস্বীকার করেন প্রতিষ্ঠানে থাকা কেবিনের কথা। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ১০ শয্যার অনুমোদন থাকলেও স্বাস্থ্য সেবায় দিতে ব্যবহার করেন ৩০ শয্যা। এছাড়াও ওই প্রতিষ্ঠানে রয়েছে ১৫টি কেবিন। যা, রোগীর স্বাস্থ্য সেবায় ব্যবহৃত হয়। কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুর রশিদ জানান, বিষয়টি আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি। এব্যাপারে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডাঃ সেলিনা বেগম বলেন, আমি খুলনায় একটি মিটিংয়ে আছি, পরে কথা বলেন। উল্লেখ্য গত ১৯ নভেম্বর সামস্উদ্দীন মেমোরিয়াল প্রাইভেট হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক কমপ্লেক্সে কর্তৃপক্ষের অবহেলায় প্রসূতি মায়ের গর্ভেই আরোও এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর